ল্যাপটপ বাজারে বেশ জনপ্রিয়তা পাওয়া তিনটি ল্যাপটপ

    বর্তমানে ল্যাপটপ ইউজার এর সংখ্যা গত দুই দশকের মধ্যে সবথেকে বেশি, চাহিদা অনুযায়ী কাজ করে যাচ্ছে ল্যাপটপ। এটার মূল কারন হলো পোর্টেবিলিটি। অর্থাৎ ব্যাবহারকারীরা খুব সহজেই এক জায়গায় থেকে অন্য জায়গায় গিয়ে কাজ করার প্রবনতা। কাজের প্রয়োজনে বর্তমানে ২০২০ সাল থেকে ২০২২ এর মাঝামাঝি সময়ে সবচেয়ে লাইটওয়েট যে ল্যাপটপ গুলো বাজারে এসেছে এগুলোর মধ্যে Microsoft Surface Pro X – SQ 2, Lenovo ThinkPad X1 Carbon এবং Asus ROG Zephyrs M16 বাজারে ব্যাপক চাহিদা দেখা যাচ্ছে। যাদের মধ্যে Microsoft Surface Pro X এবং Lenovo ThinkPad X1 Carbon বিজনেস সিরিজের হিসেবে বাজার কাঁপাচ্ছে অন্যদিকে Asus ROG Zephyrs M16 গেমিং ল্যাপটপ হিসবে ব্যাপক চাহিদার সৃষ্টি করেছে। তো চলুন আজকে এই তিনটি ল্যাপটপের সকল বিষয়গুলো নিয়ে আলোচনা করা যাক, আশা করি সাথেই থাকবেন।

    Microsoft Surface Pro X SQ2

    স্টুডেন্ট এবং টিন-এজাররা বর্তমানে টাচ স্ক্রিন ভালো মানের একটি ল্যাপটপ খোঁজে তাদের জন্য Microsoft Surface Pro X SQ2 সবথেকে ভালো অপশন। এর সাথে থাকে একটি পেন্সিল। এই পেন্সিলের জন্য গ্রাফিক্স ডিজাইনাররাও এই ল্যাপটপের চাহিদা রাখে। মোটামুটি যারা গ্রাফিক্স ডিজাইনিং এর কাজ করেন অথবা 2D এবং 3D কার্টুন আর্টিস্ট আছেন তারা সবথেকে বেস্ট মনে করেন Microsoft এর এই ল্যাপটপটাকে। চলুন এর স্পেসিফিকেশন নিয়ে কিছু আলোচনা করা যাক।

    Microsoft Surface Pro X SQ2

    Proccessor
    প্রসেসর হিসেবে এতে ব্যাবহার করা হয়েছে Snapdragon এর SQ2 চিপসেট। সাধারনত ল্যাপটগুলোতে খুব কমই Snapdragon এর চিপসেট বাজারে দেখা যায় তবে পারফরম্যান্স হিসেবে বিবেচনা করলে এটি Intel এবং AMD কে অনায়াসে টক্কর দেবার ক্ষমতা থাকে। তবে সেক্ষেত্রে ইউজার ইন্টারফেস নিয়ে ভালো একটা সাপোর্ট দিতে হয়। নতুন হিসেবে নয়, Snapdragon বেশ ভালো সুনামের সাথেই মোবাইল ফোন ম্যানুফ্যাকচার কোম্পানিগুলোকে সাপোর্ট দিয়ে যাচ্ছে।

    Graphics
    Andreno 690 গ্রাফিক্স কার্ডটি মূলত স্মার্টফোনের জন্য ডেডিকেটেডলি তৈরি করা। স্মার্টফোনগুলোতে বেশ ভালোই সাপোর্ট দিতে পারে এই গ্রাফিক্স কার্ড। এতে মোট তিনটি এক্সকিউশন ইউনিট আছে এবং সাথে আছে ৭৬৮ টি স্যাডিং ইউনিট। এই গ্রাফিক্স কার্ডটি 7nm এ তৈরিকৃত। যার বেজ ফ্রিকোয়েন্সি ০.৭ থেকে শুরু হয়। এবং জিপিইউ ক্লক ৬৬১ MHz. স্পেকস হিসেবে ভালো পারফর্মেন্স দেবার কথা কিন্তু ল্যাপটপে এটি কতটা কম্পেক্টিবিলিটি রাখে সেটার উপর বিবেচনা করে এর পারফরম্যান্স।

    Extra’s
    এছাড়া এই Microsoft Surface Pro X1 SQ2 তে আপনি পাবেন 16 GB LPx DDR4 Ram, 512 GB এর M.2 SSD যা একদম সুপারফাস্ট কাজ করে। ১৫+ ঘন্টার ব্যাটারি ব্যাকাপ যা Microsoft তাদের অফিসিয়াল ওয়েবসাইট এ ক্লেইম করেছে। সাথে ১ বছরে মাইক্রোসফট এর অফিশিয়াল ওয়ারেন্টি।

    এই ল্যাপটপটি এবং মাইক্রোসফট এর অন্যান্য মডেলের দাম সম্পর্কে জানতে এখানে ভিজিট করতে পারেন microsoft surface price in bangladesh

    Asus ROG Zephyrs M16

    আসুসের গেমিং ল্যাপটপের সেকশনে ২০২২ সালের সেরা তিনটি ল্যাপটপের মধ্যে একটি এই Asus ROG Zephyrs M16। লেটেস্ট 12th Generation এর ল্যাপটপ হিসেবে এই বাজেট সেগমেন্ট এ ওয়ান অফ দ্যা বেস্ট ল্যাপটপ এটি। এতে রয়েছে GeForce RTX 3070i গেসিং গ্রাফিকস সিস্টেম যা গেমিং এ অন্য রকমের অনুভূতি আনে। তো চলুন স্পেসিফিকেশন নিযে আলোচনা করা যাক।

    Asus ROG Zephyrs M16

    Proccessor
    Asus তাদের প্রসেসর সেকশনে কোন কমতি রাখে না যার আরেকটি প্রমান এই Asus ROG Zephyrs M16. এতে প্রসেসর হিসেবে ব্যাবহার করা হয়েছে 12th Generation Intel® Core™i9-12900H প্রেসসর। এক কথা প্রসেসরটি গেমিং হিসেবে খুবই ভালো কাজ করে। প্রসেসরটির বেজ ফ্রিকোয়েন্সি 2.5 GHz এবং যা 5.00 পর্যন্ত পুশ করা যায় হেভি টাস্কের ক্ষেত্রে। এছাড়াও মাল্টি টাস্কিং এর জন্য এতে রয়েছে Level 3 এর ক্যাশ ম্যামরি, সব দিক বিবেচনা করে বলা চলে এটি একটি অত্যান্ত দুর্দান্ত প্রসেসর এই সেগমেন্টের গেমিং ল্যাপটপের জন্য। আপনি যদি এই রেঞ্জে থাকা অন্যান্য গেমিং ল্যাটপ এর দাম সম্পর্কে জানতে বা দাম বিবেচনা করতে চান তবে এখানে ভিজিট করতে পারেন gaming laptop price in bangladesh

    Graphics
    বাজারে এই Asus ROG Zephyrs M16 এর বিক্রি হবার মূল কারনই এর গ্রাফিক্স সেকশন। এর গ্রাফিক্স সেকশনে রয়েছে এই বছরের মোস্ট পাওয়ারফুল চিপসেট NVIDIA GeForce RTX 3070ti গ্রামিং ডেডিকেটেড গ্রাফিক্স কার্ড। গ্রাফিক্স কার্ডটি 8GB GDDR6 এর ফ্রিকোয়েন্সী 1175MHz.

    সবসময় আমার পরামর্শ থাকবে ফিচারের পাশাপাশি ডিভাইসটি কতটা অর্থযোগ্য সেটাও দেখতে। এই ল্যাপটপটির বর্তমান বাজার মূল্য সম্পর্কে জানতে এখানে ভিজিট করতে পারেন asus rog zephyrus m16 price in bangladesh

    Lenovo ThinkPad X1 Carbon

    Lenovo তাদের বিজনেজ সিরিজের যে ল্যাপটপগুলো বাজারে এনেছে তাদের মধ্যে সবথেকে বেশি যে ল্যাপটপ বাজারে বিক্রি হয় তার ৪৩% বিক্রি হয় এই Lenovo ThinkPad X1 Carbon. এই ল্যাপটপ বাজারে আনার আগে হায়েস্ট থার্মাল টেস্ট এর মধ্যে পার হয়ে তবেই বাজারে আসে। বলা হয়ে থাকে ThinkPad সিরিজের ল্যাপটপগুলো মিলিটারি গ্রেডের টেস্ট পার হয়ে তবেই আমাদের ক্রেতাদের হাতে আসে। তাই এই Lenovo ThinkPad X1 Carbon এর বিল্ড কোয়ালিটি কেমন হতে পারে তা আমরা এর থেকেই আন্দাজ করতে পারি। চলুন বাকি সকল স্পেসিফিকেশন নিয়ে আলোচনা করা যাক।

    Lenovo ThinkPad X1 Carbon

    Proccessor
    ২০২২ সালে এসেও Lenovo তাদের X1 Carbon ল্যাপটপটিতে Core i7 10510U প্রসেসর ব্যাবহার করেছে যা সত্যিই হতাশাজনক। প্রসেসরটিকে আমি খারাপ বলছিনা তবে ২০২২ এর এসে কমপক্ষে 11 th Generation এর ল্যাপটপ এই বাজেটের ল্যাপটপ ক্রেতাটা ডিজার্ব করে বলে মনে করি। প্রসেসরটি 4c এর স্ট্রাকচারের সাহায্যে তৈরি। যার বেজ ফ্রিকোয়েন্সি 3.3GHz যা 4.9 GHz পর্যন্ত পুশ করানো যায়। পুশ করিয়ে এই প্রসেসর এর গেমিং এবিলিটি টেস্ট করাই যায় যেটা একটা ভালো দিক। এছাড়া এতে Level 3 এর Cache ম্যামরি হিসেবে 8MB ব্যাবহার করা হয়েছে এটি মাল্টিটাস্কিং এর জন্য ভালো সাপের্ট দিতে পারে।

    Graphics
    গ্রাফিক্স হিসেবে যদিও এতে ডেডিকেটেড কোন গ্রাফিক্স কার্ড নেই তবে এতে Intel এর UHD 645 গ্রাফিক্স কার্ড ব্যাবহার করা হয়েছে। তবে এই মিড বাজেটে একটা গ্রাফিক্স কার্ড দেয়া উচৎ ছিলো।

    Extra’s
    এছাড়াও রয়েছে 16 GB এর LPx DDR3 Ram যার বাজ ফ্রিকোয়েন্সী 2133. এই বাজেট রেঞ্জে যা সত্যিই যায় না। M.2 522GB SSD যা দৈনন্দিন কাজের জন্য বেশ সাপোর্ট দেয়। লাইটওয়েট মাত্র ১.০৯ কেজি। সাথে রয়েছে Lenovobএর অফিসায়াল ৩ বছরের সার্ভিস ওয়ারেন্টি। এই ল্যাপটপটির বর্তমান বাজার মূল্য সম্পর্কে জানতে এখানে ভিজিট করতে পারেন lenovo thinkpad x1 price in bangladesh

    By Daniel

    hey , I am Daniel. A Great Anime Lover. I love to watch anime and share Anime Apps, Web Series and ETC For Anime Lovers.

    Leave a Reply

    Your email address will not be published.