মোবাইল গরম হয় কেন? মোবাইল গরম হলে কি করনীয়?

    টেকনোলোজির এই যুগে মোবাইল ফোন একটি অনন্য নাম। আমরা প্রায় সকলেই মোবাইল ফোন ব্যবহারে পরিচিত। তবে এখন আর সাধারণ মোবাইল তেমন ব্যবহার করা হয়না। প্রায় সকলের হাতে হাতেই রয়েছে এক বা একাধিক স্মার্টফোন। স্মার্টফোন ব্যবহারের ফলে আমাদের দৈনন্দন জীবনের বিভিন্ন কাজের উন্নতি ঘটেছে। কিন্তু স্মার্টফোন যখন নিজেই ক্ষতির কারণ হয়ে দাঁড়ায়, তখন বিষয়টা খুবই ভয়ঙ্কর মনে হয়। স্মার্টফোন বা মোবাইল ফোনের প্রায় ব্যবহারকারীদের একটা বিশেষ অভিযোগ হলো তার স্মার্টফোন বা মোবাইল অতিরিক্ত গরম হয়ে যায়। আসলে স্মার্টফোন বা মোবাইল গরম হলে কি করনীয়?

    মোবাইল বা স্মার্টফোন এক ধরণের ইলেক্ট্রনিক যন্ত্রের মাধ্যমে তৈরি । যা বৈদুতিক যন্ত্রাংশের মাধ্যমে চলমান। তাই এটা গরম হবে এটা স্বাভাবিক বটে। তবে অতিরিক্ত গরম হওয়া খুবই অস্বাভাবিক। এ থেকে অনাকাঙ্খিত মর্মান্তিক ঘটনাও ঘটে যেতে পারে। অনেকেই আছেন, মোবাইল গরম হয়ে যাওয়া নিয়ে হতাশায় পড়ে যান। তার পাশাপাশি অনেকেই সমাধানের জন্য এদিক ওদিক ঘুরাঘুরি করেন বা অনলাইনে ঘাটাঘাটি করেন। আবার অনেকেই সমাধান না পেয়ে স্মার্টফোন ব্যবহারই ছেড়ে দেন।

    কিন্তু প্রায় মানুষই জানে না যে, প্রতিটা সমস্যার কোনোনা কোন সমাধান তো আছেই। আজকের এই পিসডটি তাদের জন্য তৈরি করা, যাদের স্মার্টফোন অতিরিক্ত গরম হয়ে যায়। চলুন জেনে নিই, মোবাইল গরম হলে কি করনীয়?

    মোবাইল গরম হয় কেন?

    ০১| টেকনোলোজি দিনদিন আপডেট হচ্ছে। সেইসাথে স্মার্টফোনও আপডেট হচ্ছে। তবে সেই অনুযায়ী স্মার্টফোনের ব্যাটারী আপডেটের তেমন উন্নতি দেখা যায় না। কোম্পানিগুলো কেন এটার দিকে তেমন নজর দিচ্ছে না, তা সঠিক বুঝতে পারছি না।

    মোবাইল গরম হয়ে যাওয়ার ব্যাপারে অনেক গবেষকরা মনে করছেন যে, বর্তমান বাজারে এমন কিছু স্মার্টফোন পাওয়া যায়, যেগুলোর ব্যাটারী এতটাই পাতলা যা স্মার্টফোনকে সঠিক বোল্টেজ প্রদান করতে পারেনা। যার ফলে স্মার্টফোনটি অতিরিক্ত গরম হয়ে যায়।

    ০২| স্মার্টফোনকে চার্জে লাগিয়ে ব্যবহার করা। এই ভুলটা প্রায় অনেকেই করে থাকে। অনেক সময় ধরে গেইম খেলা বা টিপাটিপি করা। এটা স্মার্টফোন গরম হওয়ার বিশেষ একটি কারণের মাঝে অন্যতম।

    ০৩| স্মার্টফোনে একসাথে খুব বেশী অ্যাপ ইনিস্টল করা। আমাদের মাঝে অনেকেই আছে যাদের মোবাইলে ১৫০/২০০ অ্যাপ একসাথে ইনিস্টল থাকে। তাদের মোবাইল গরম হওয়ারই কথা। শুধু তাই নয়, মোবাইল হ্যাং হওয়ারও সম্ভাবনা থাকে।

    ০৪|মোবাইলে একসাথে অনেকগুলো অ্যাপ ওপেন করে রাখা। এটা করলে প্রসেসর, র‌্যাম ও ব্যাটারীর উপর খুবই ছাপ সৃষ্টি হয়। কারণ, প্রত্যেকটা অ্যাপই তখন মিনিমাইজ হয়ে ব্যাকগ্রাউন্ডে চলতে থাকে। এমতবস্তায় স্মার্টফোনটি অতিরিক্ত গরম হয়ে যায়।

    ০৫| ইন্টারনেট স্লো থাকার কারণে অনেক সময় স্মার্টফোন গরম হয়ে যায়। এটা শুধু ইন্টারনেট ব্যবহারকারীদের জন্য।

    ০৬| বিভিন্ন ভাইরাস জনিত কারণে স্মার্টফোন অতিরিক্ত গরম হতে পারে। তাছাড়া স্মার্টফোনে এক্সট্রা মেমোরি ব্যবহার করা। এটাও অতিরিক্ত গরম হওয়ার একটি কারণ।

    ০৭| স্মার্টফোনের ডিসপ্লের রেজুলেশনের চেয়ে বেশি রেজুলেশনের কোনো মুভি, ভিডিও ইত্যাদি দেখা।

    মোবাইল গরম হলে কি করনীয়?

    ০১| অবশ্যই উপরোল্লেখিত বিষয়গুলোর দিকে নজর দিতে হবে। অতিরিক্ত গরম হওয়ার ব্যাপারে যা যা বললাম, সেগুলো থেকে বিরত থাকতে হবে। তবে আশাকরি অনেকটা সমাধান পেয়ে যাবেন।

    ০২| প্রয়োজনীয় অ্যাপগুলো ছাড়া বাকি সমস্ত অ্যাপ আনইনিস্টল করে দেওয়া ভালো। অনেক সময় স্মার্টফোনের ডিফল্ড অ্যাপগুলো আনইনিস্টল করা যায় না। এক্ষত্রে এসব অ্যাপ ডিজেবল করে দেওয়া যায়।

    স্মার্টফোনের ডিফল্ড অ্যাপ ডিজেবল করতে সেটিং অপশনে যেতে হবে। তারপর Apps নামে একটি লেখা দেখতে পাবেন। সেটাকে ক্লিক করে All Apps-এ ক্লিক করলে স্মার্টফোনের সমস্ত অ্যাপগুলো দেখাবে। এখান থেকে অপ্রয়োজনীয় সমস্ত অ্যাপ ডিজেবল করে দিলে স্মার্টফোন অনেকটা ফ্রি হয়ে যায়।

    অপ্রয়োজনীয় অ্যাপগুলো ডিজেবল করে দিলে প্রসেসর, র‌্যাম, ও ব্যাটারীর উপর বাড়তি কোনো প্রেসার পড়ে না। অনেক সময় এই অ্যাপগুলোর জন্যই স্মার্টফোন স্লো হয়ে যায়, এর প্রতিক্রিয়ায় অতিরিক্ত গরম হওয়ার সম্ভাবনা বেড়ে যায়।

    By Daniel

    hey , I am Daniel. A Great Anime Lover. I love to watch anime and share Anime Apps, Web Series and ETC For Anime Lovers.

    Leave a Reply

    Your email address will not be published.